ভারতে বন্যায় ২৮ জনের মৃত্যু

মুখোমুখি ডেস্ক: ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোয় প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে কমপক্ষে ২৮ জনের মৃত্যু এবং আরও ২২ জন নিখোঁজ হয়েছে। রোববারের বৃষ্টিপাতে শুধু হিমাচল প্রদেশেই ২২ জন মারা গেছে এবং নয় জন আহত হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সিমলায় ৯ জন এবং সোলানে ৫ জন মারা গেছে। এছাড়া কুলু, সিরমৌর ও চম্বায় দুই জন করে এবং ওনা ও লাহৌল-স্পিতি জেলায় একজন করে মারা গেছে।

এছাড়া যমুনাসহ অন্যান্য উপনদীগুলোর পানি ক্রমাগত বৃদ্ধির কারণে দিল্লি, হরিয়ানা, পাঞ্জাব ও উত্তরপ্রদেশে বন্যা  সতর্কতা জারি করা হয়েছে। যমুনা নদীতে হথিনী কুন্ড জলাধার থেকে ৮.১৪ লাখ কিউসেক পানি ছাড়া হয়েছে। ফলে হরিয়ানা সরকার যেকোনো আপৎকালীন পরিস্থিতির জন্য সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকার অনুরোধ করেছে। এর ফলে দিল্লিতেও বন্যার সম্ভাবনা প্রবল ভাবে দেখা দিচ্ছে।

দিল্লি সরকার রোববার দেশের রাজধানীতে বন্যার সতর্কতা জারি করেছে। এর পাশাপাশি নিচু অঞ্চলে বসবাসরত লোকদের সেখান থেকে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাওয়ার কাজ চলছে। এদিকে দিল্লির সমস্ত উপ-বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটদের সোমবার সকাল ৯টার মধ্যে দিল্লি পুলিশ এবং সিভিল ডিফেন্সের স্বেচ্ছাসেবীদের সহায়তায় নিচু এলাকার থেকে লোকদের সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

দিল্লি সরকার জানিয়েছে, নিচু এলাকার লোকেদের থাকার ব্যবস্থা করার জন্য তাঁবু খাটানোর কাজ চলছে।

অন্যদিকে, দক্ষিণ ভারতের কেরালায় বন্যার ফলে মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ১২১ জনে দাঁড়িয়েছে। আর কর্নাটকে বৃষ্টির ফলে রোববার মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৭৬ জন হয়েছে। এছাড়া মহারাষ্ট্রের পুণেতে বন্যার ফলে মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৫৬ জনে দাঁড়িয়েছে।

Share Button

Comments

comments

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*